জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে ফুটবলার আরিফকে সংবর্ধনা

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০২০

নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে নারায়ণগঞ্জের গর্বিত সন্তান কৃতি ফুটবলার আরিফ হাওলাদারকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১৭ আগস্ট) দুপুর ৩টায় জেলা প্রশাসকের সম্মোলন কক্ষে আরিফ ও তার বাবা-মায়ের হাতে এই সংবর্ধনা তুলে দেওয়া হয়।

এ সময় নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ টিটুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, সম্মানিত অতিথি হিসেবে জাতীয় মহিলা সংস্থা নারায়ণগঞ্জ জেলার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, কিভাবে ঘুরে দাড়াতে হয় সে শিক্ষা আরিফের থেকে আমাদের শিখা দরকার। কিভাবে এই যুদ্ধের মোকাবেলা করতে হয় সেটা কিন্তু সে আমাদের শিখিয়েছে। নারায়ণগঞ্জে মনির মুন্নার মত অনেক কৃতি খেলোয়ার আছে। এই কৃতি খেলোয়ারদের স্মৃতি ধরেই আরো অনেক আরিফ তৈরি হবে। সেই জায়গায় আমাদের অনেক কিছু করার আছে। সেই জায়গাটা আমরা ধরে রাখতে চাই। সবাই মিলে ধরে রাখতে হবে। সবায় মিলে যদি ধরে রাখি তাহলে কোনো একটা জায়গা ফাঁকা পরবে না। সব জায়গাগুলো আমরা একত্রে করতে পারবো।

জাতীয় মহিলা সংস্থা নারায়ণগঞ্জ জেলার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি বলেন, আরিফ সত্যিই কিন্তু বড় একটি মেসেজ দিয়ে গেছে। ঘুরে দাড়ায় কিভাবে। কিভাবে এই যুদ্ধের মোকাবেলা করতে হয় সেটা কিন্তু সে আমাদের শিখিয়েছে। আরিফ করোনার মধ্যেও দমে যায়নি থেমে যায়নি। সে তার পরিবার নিয়ে চেষ্টা চালিয়েছে। ফলে আজকে আমরা তাকে সংবর্ধনা দিচ্ছি।

সভাপতির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ টিটু বলেন, খেলাধুলার জগতে আরিফের একজন বড় ভাই হিসেবে বলবো যে কোন খেলোয়ার কখনো দুঃস্থ হয় না। সে সাময়িক কারণে অসহায় হয়ে যাতে পারে কিন্তু সে কখনো দুঃস্থ নয়। একজন খেলোয়ারের সারা জীবনই সংগ্রাম করে যেতে হয়। হোক সেটা বাস্তব জীবনে বা খেলার মাঠে। খেলাটাই হচ্ছে একজন খেলোয়ারের সবচেয়ে বড় সম্বল।